তাজা বার্তা | logo

৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

৫০ হাজার ৪০১টি নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৫৯১৩ জন

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২৭, ২০২০, ১৮:২৮

৫০ হাজার ৪০১টি নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৫৯১৩ জন

দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর থেকে দেশে করোনায় আক্রান্ত রোগী বাড়তে থাকে। ওই দিন থেকে আজ দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ৫১তম দিন। এ ৫১তম দিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ৫০ হাজার ৪০১টি নমুনা পরীক্ষা করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কি না, তার পরীক্ষা করে। ওই পরীক্ষার পর পাঁচ হাজার ৯১৩ ব্যক্তির শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬৮ ভাগ পুরুষ এবং ৩২ ভাগ নারী রয়েছে। আজ সোমবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত নিয়মিত কোভিড-১৯ তথ্য বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

এ ছাড়া সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, করোনায় আক্রান্তদের বয়সের হিসাবটি এমন— ১০ বছরের নিচে তিন ভাগ, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে মধ্যে আট ভাগ, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ২৪ ভাগ, ৩১ থেকে ৪০ বছরে মধ্যে ২২ ভাগ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৮ ভাগ, ৫১ থেকে ৬০ বছরে মধ্যে ১৫ ভাগ এবং ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ১০ ভাগ।

এদিকে করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরো সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৫২ জনের মৃত্যু হলো। এ ছাড়া নতুন করে আরো ৪৯৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট পাঁচ হাজার ৯১৩ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত নিয়মিত বুলেটিনে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় চার হাজার ১৯২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে তিন হাজার ৮১২ জনের করোনার পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পরীক্ষার পর ৪৯৭ জন করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।

ডা. নাসিমা আরো বলেন, আজ দেশে করোনায় আক্রান্তের ৫১তম দিন এবং সাধারণ ছুটির এক মাস পূর্ণ হলো। এ ৫১তম দিনে করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে মোট ৫০ হাজার ৪০১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

অধ্যাপক নাসিমা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। এ পর্যন্ত মোট ১৩১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত সাতজনের মধ্যে ছয়জন পুরুষ ও একজন নারী। পাঁচজন ঢাকার ভেতরে এবং দুজন ঢাকার বাইরে সিলেট ও রাজশাহীর। তাদের মধ্যে পাঁচজনের বয়স ৬০ বছরের বেশি এবং একজনের বয়স ৪০ থেকে ৫১ বছরের মধ্যে এবং একটি শিশু মারা গেছে, যার বয়স ১০-এর নিচে।


© তাজা বার্তা ২০২১

Developed by XOFT IT