তাজা বার্তা | logo

৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

করোনা পরীক্ষা করান: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ১৩, ২০২০, ২০:১০

করোনা পরীক্ষা করান: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনা থেকে নিজে বাঁচতে এবং দেশকে বাঁচাতে পরীক্ষার করানোর আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সোমবার (১৩ এপ্রিল) দুপুর আড়াইটার দিকে করোনাভাইরাস নিয়ে অনলাইনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য আহ্বান জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে আমরা অনেক জায়গায় টেস্টের ফ্যাসিলিটি দিয়েছি। প্রায় ১৭টির মতো চালু হয়েছে। আমরা প্রত্যেকটি জেলার মেডিকেল কলেজ এবং বেসরকারি হাসপাতাল, যারা টেস্ট করতে চাচ্ছেন তাদেরকেও আমরা অনুমোদন দিচ্ছি।

আমরা আমাদের হাসপাতাল এবং অন্যান্য ব্যবস্থাপনা মজবুত করছি। কিন্তু আমাদের বুঝতে হবে যে, হাসপাতালে লক্ষ লক্ষ মানুষের চিকিৎসা কোনো দেশই দিতে পারে না। আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে, কোভিড মোকাবেলার মূল অস্ত্র ঘরে থাকা এবং পরীক্ষা করা। এর ফালে যারা সংক্রামিত হয়েছে তারা চিহ্নিত হবে। তাহলে তাদের আইসোলেশনে রাখা যাবে যাতে তারা আর কাউকে সংক্রামিত না করতে পারে। এটিই সবচেয়ে বড় হাতিয়ার, সবচেয়ে বড় অস্ত্র। এইদিকেই আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের মূলমন্ত্র হলো- ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। আক্রান্ত হবেন না। করোনা পরীক্ষা করান। প্রিয়জনকে বাঁচান, নিজে বাঁচুন, দেশকে বাঁচান।

এদিকে বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সব মিলিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৯ জনে।

মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ জন। এ নিয়ে মোট ৪২ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে ফিরলেন।

এছাড়া দেশে নতুন করে আরো ১৮২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। সব মিলিয়ে দেশে শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৮০৩ জনে।

এর আগে গতকাল রোববার নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআর একদিনে ১৩৯ জন করোনা রোগী শনাক্তের কথা জানিয়েছিল। গতকাল পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৩৪।

বাংলাদেশে ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর ধাপে ধাপে বাড়তে থাকে শনাক্ত রোগী। গেল ৯ এপ্রিল ২৪ ঘণ্টায় দেশে শতাধিক করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্তের কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। এরপর থেকে শনাক্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও বাড়ে মৃত্যুর সংখ্যা।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে আরও ৯ বাংলাদেশিসহ একদিনে দেড় হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় ১৩১ জন বাংলাদেশিসহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২২ হাজার ১০৫ জনে দাঁড়ালো। আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৬০ হাজারের বেশি মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে কোভিড উনিশে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা কিছুটা কমলেও নিউইয়র্কে যেন কোনো ভাবেই থামছে না মৃত্যুর মিছিল। রোববারও (১২ এপ্রিল) বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি মারা গেছেন। এরমধ্যে ভার্জিনিয়ায় মারা গেছেন এক বাংলাদেশি। নিউইয়র্কের বাইরেও বিভিন্ন স্থান হট স্পট হয়ে উঠেছে করোনাভাইরাসের।

এছাড়া স্পেনে করোনায় একদিনে ৬০৩ জন মারা গেছেন। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লাখ ৬৬ হাজার। এদের মধ্যে ১২৭ জন বাংলাদেশি। প্রতিবেশী পর্তুগালে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০৪। আক্রান্ত হয়েছেন ৮ বাংলাদেশি। সংক্রমণরোধে হোম কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ বাড়তে থাকায় নানা সঙ্কটে আছেন দু’দেশের প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এদিকে প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সারা বিশ্বে সাড়ে ১৮ লাখেরও বেশি করোনা রোগী শনাক্তের খবর পাওয়া গেছে। মারা গেছেন ১ লাখ ১৪ হাজারের বেশি।


© তাজা বার্তা ২০২১

Developed by XOFT IT