তাজা বার্তা | logo

৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাতে ফরিদীর চশমা নিলামে উঠছে, ভিত্তিমূল্য এক লাখ

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ৩০, ২০২০, ১৮:১৫

রাতে ফরিদীর চশমা নিলামে উঠছে, ভিত্তিমূল্য এক লাখ

বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে। বাংলাদেশেও এ মিছিল লম্বা হচ্ছে দিনে দিনে। ছোঁয়াচে এ রোগের বিস্তার ঠেকাতে হলে সামাজিক দূরত্বের বিকল্প নেই। দেশের বিভিন্ন জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এ অবস্থায় বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। তাঁদের সহায়তায় এগিয়ে আসছেন তারকারা।

করোনাকালীন এই সংকট মোকাবিলায় গায়ক তাহসান রহমান খানের প্রথম অ্যালবাম ‘কথোপকথন’-এর মাস্টার ক্যাসেট ও ‘ঈর্ষা’ গান লেখার কাগজটি নিলামে উঠেছে, বিক্রি হয়েছে সাড়ে সাত লাখ টাকায়।

এরই ধারাবাহিকতায় করোনার কারণে অসহায় হয়ে পড়া হতদরিদ্রদের সহায়তায় অর্থ সংগ্রহে এবার নিলামে তোলা হচ্ছে বাংলা চলচ্চিত্রের প্রয়াত কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদীর ব্যবহৃত শেষ চশমাটি।

আজ ৩০ এপ্রিল রাত ১১টায় ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ ফেসবুক পেজে নিলামে উঠতে যাচ্ছে হুমায়ুন ফরীদির চশমা, যার ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে এক লাখ টাকা।

ফেসবুকে ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ লিখেছে, ‘আমরা ভাগ্যবান, আমরা আমাদের সময়ে উনাকে পেয়েছিলাম। এই ক্ষণজন্মা মানুষটি এখন আমাদের মাঝে না থাকলেও তাঁর কালজয়ী কাজগুলো আমি শিউর যুগ যুগ ধরে টিকে থাকবে আমাদের অনেক পরের জেনারেশান পর্যন্ত। আমাদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তাঁর পরিবার এগিয়ে এসেছে তাঁর সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত চশমাটি নিয়ে। আমরা কৃতজ্ঞ তাঁর পরিবারের প্রতি।’

এর আগে ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ পেজের মাধ্যমে নিলামে তোলা হয় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের গত বিশ্বকাপ মাতানো ব্যাটটি। সেটি ২০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছে। যা সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশনে দেওয়া হয়েছে। এই টাকা দিয়ে দুস্থ মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে।

দেশের কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদী। মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র সব জায়গায়ই ছিল তাঁর সাবলীল বিচরণ। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময়ে তিনি নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের সাহচর্যে আসেন। সেলিম আল দীনের ‘শকুন্তলা’ নাটকের ‘তক্ষক’ চরিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন। ১৯৮২ সালে তিনি ‘নীল নকশার সন্ধানে’ নাটকে অভিনয় করেন। এটি ছিল তাঁর প্রথম টেলিভিশন নাটক।

এরপর একে একে অভিনয় করেছেন ‘ভাঙনের শব্দ শোনা যায়’, ‘সংশপ্তক’, ‘দুই ভাই’, ‘শীতের পাখি’ এবং ‘কোথাও কেউ নেই’-এর মতো দর্শকপ্রিয় নাটকে। ‘হুলিয়া’, ‘জয়যাত্রা’, ‘শ্যামলছায়া’, ‘একাত্তরের যিশু’, ‘আনন্দ অশ্রু’সহ অনেক সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ২০১২ সালে এ কিংবদন্তি অভিনেতা মারা যান।


© তাজা বার্তা ২০২১

Developed by XOFT IT