তাজা বার্তা | logo

৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাজার ইলিশে সয়লাব, দামও হাতের নাগালে

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ১৪, ২০২০, ১৪:০৩

বাজার ইলিশে সয়লাব, দামও হাতের নাগালে

আজ পহেলা বৈশাখ। রাজধানীবাসীসহ দেশের কোথাও নববর্ষ উপলক্ষে কোনো অনুষ্ঠান হচ্ছে না। সবাই বাড়িতে বসেই নববর্ষ উদযাপন করছেন। পহেলা বৈশাখের বাঙালির প্রধান আকর্ষণ পান্তা-ইলিশ। বিগত বছরগুলোতে পান্তা-ইলিশ যেন বিত্তবানদের খাবার ছিল। অতিরিক্ত দাম ও মাছের স্বল্পতার কারণে পাতে জুটত না বাঙালির প্রিয় এ খাবার। কিন্তু এ বছর করোনার কারণে পুরো দেশ অবরুদ্ধ অবস্থায় আছে। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বাড়িতে বসে নববর্ষ উদযাপন করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। আর মানুষ ঘর থেকে কম বের হওয়ায় নববর্ষের সময় সবচেয়ে দামি জিনিস ইলিশ মাছেরও এবার আকাশচুম্বি দাম ওঠেনি। বাজারে রয়েছে পর্যাপ্ত ইলিশ মাছ, আবার দামও হাতের নাগালে রয়েছে।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর মাছের সবচেয়ে বড় আড়ৎ যাত্রাবাড়ীতে গিয়ে দেখা গেছে, মাছের সয়লাব। যেখানে বিগত বছরগুলোতে পহেলা বৈশাখের আগে ইলিশের এক কেজি সাইজের ইলিশ বিক্রি হতো দেড় হাজার টাকার ওপরে। অথচ সে ইলিশ এখন কেনা যাচ্ছে ৭০০-৮০০ টাকায়।

এ ছাড়া কাওরানবাজার, শনিরআখড়া, টিকাটুলি,ওয়ারী, কদমতলীমসহ বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দেখা গেছে মাছের সয়লাব।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, বিগত বছরগুলোতে ইলিশ মাছ অনেক বিক্রি হতো। কিন্তু লকডাউনের কারণে মানুষ বাজারে কম আসছে তাই কম দামে মাছ বিক্রি করা হচ্ছে।

যাত্রাবাড়ীতে মাছ ব্যবসায়ী হারুন জানালেন, ১০ বছরেও পহেলা বৈশাখের আগে এমন চিত্র দেখেননি। এ সময় মাছের প্রচুর চাহিদা থাকে। শুধু বিত্তবান শ্রেণির মানুষ মাছ কিনতে পারত। কিন্তু এবার করোনার কারণে মাছের দাম কম, তাই সবাই কিনতে পারছে।

মবিনুল ইসলাম নামের আরেক ব্যবসায়ী বলেন, সাধারণত এ সময় বাজারে ইলিশের দাম বেশি থাকে। তবে এ বছর ইলিশের সরবরাহ বৃদ্ধি ও করোনার কারণে মানুষ কম কেনায় দামও অনেকটা কমে গেছে। তাই ক্রেতাদের মধ্যেও বেড়েছে ইলিশের চাহিদা। ইলিশের দামের প্রভাব পড়েছে অন্য প্রজাতির মাছেও। এর সুফল পাচ্ছে ক্রেতারা।

মিজানুর রহমান নামের এক ক্রেতা জানান, তিনি ব্যাংকে চাকরি করেন। কিন্তু এ বছর অসময়ে ইলিশের দাপট শুরু হয়েছে। ইলিশ রক্ষায় সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এ ছাড়া এ সময় দেশি মাছের জোগান বেশি বলে, ইলিশের দামও কিছুটা কম।

রফিক নামে এক বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা বলেন,করোনার কারণে বাসা থেকে বের একবারে হচ্ছি না। অফিস থাকলেও মাঝে মধ্যে যাই। কিন্তু আজ পহেলা বৈশাখ। বাসার বাইরে যেহেতু বের হতে পারব না, তাই ব্যক্তিগত সুরক্ষা নিয়ে মাছ কিনতে আসলাম। এসে দেখি হাতের নাগালে কম দামেই মাছ পাওয়া যাচ্ছে।

এদিকে বাজারে গিয়ে দেখা গেছে,এক কেজি ওজনের নদীর ইলিশের দাম সাড়ে ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৭০০-৮০০ গ্রামের কেজি দাম সাড়ে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা। আর ৫০০ গ্রামের কেজি সাড়ে ৫০০ টাকা।


© তাজা বার্তা ২০২১

Developed by XOFT IT