তাজা বার্তা | logo

৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বল্লার সংক্ষিপ্ত পরিচিতি ও ঐতিহ্য

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২৩, ২০২০, ১৭:২৬

বল্লার সংক্ষিপ্ত পরিচিতি ও ঐতিহ্য

বল্লা ইউনিয়ন টাঙ্গাইল জেলার অন্তর্গত কালিহাতি উপজেলার একটি ইউনিয়ন। এটি টাঙ্গাইল শহরের ১২ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত।
পোস্ট কোড: ১৯৭৩

বল্লা ইউনিয়নের মোট আয়তন ৩৪৪৮ একর বা ১৩.৯৫ বর্গকিলোমিটার। ঘরবাড়ির সংখ্যা ১০০৬৮ টি।
২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী বল্লা ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা ৪২৯৯৯ জন। এদের মধ্যে ২৩৩৩২ জন পুরূষ এবং ১৯৬৬৭ জন মহিলা।

এই ইউনিয়নে আছে ভুমি অফিস ১টি, বিদ্যুৎ অফিস ১টি, পোষ্ট অফিস ১টি, বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র ১টি, ব্যাংক ৮ টিঃ সোনালী ব্যাংক, কৃষি ব্যাংক, রুপালী ব্যাংক, গ্রামীণ ব্যাংক, বাংলাদেশ কর্মাস ব্যাংক, সাউথ ইস্ট ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, জনতা ব্যাংক। মসজিদ ৩০টি, মন্দির ১৭টি, কবরস্থান ১৪টি, শ্মশান ২টি, ঈদগাহ মাঠ ১৫টি, খেলার মাঠ ৬টি।
বল্লা ইউনিয়নে ৮টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১২টি মাদরাসা, ২টি উচ্চ বিদ্যালয় এবং ১টি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় রয়েছে। কলেজ রয়েছে ১টিঃ বল্লা করোনেশন উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ ।

বল্লাতে একটি প্রাচীন ঐতিহাসিক মসজিদ রয়েছে ধারণা করা হয় বাংলাদেশের অন্যতম ২য় বৃহত্তম মসজিদ এটি। এর আয়তন ২৩৫৮০ বর্গ ফুট ।
১৯৪২ সালে আব্দুল্লাহেল কাফী আল কুরায়েশী (রহঃ) এই মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন। এটি “বল্লা আহলে হাদীস জামে মসজিদ” নামে পরিচিত।


১৯১১ সালে ব্রিটিশ সম্রাট ষষ্ঠ জর্জ সিংহাসনে আরোহণ করেন। এই সময় সাম্রাজ্যব্যাপী ষষ্ঠ জর্জ এর অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়। অভিষেক অনুষ্ঠানটি স্মরণীয় রাখার জন্য এলাকায় শিক্ষা বিস্তারের লক্ষ্যে বিশিষ্ট ধনাঢ্য ব্যবসায়ী ও সমাজকর্মী বাবু নবীন চন্দ্র সাহা ১৯১১ সালে করোনেশন উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন।

উনিশ শতকে এখানে পাটের একটি বিশাল বাজার ছিল। এখনও বল্লা বাজার টাঙ্গাইলের ব্যস্ততম একটি বাজার। বর্তমানে বল্লা ইউনিয়ন তাঁত শিল্প এলাকা হিসেবে জাতীয়ভাবে পরিচিত।

লেখা: ইসমাইল হোসেন
তথ্যসূত্র: উইকিপিডিয়া।


© তাজা বার্তা ২০২০

Developed by XOFT IT