শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

৪২ কিলোমিটার নদীপথ সাঁতরে পাড়ি দিলেন পল্লী চিকিৎসক

  • আপডেটঃ বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১
  • ১৪৫ বার দেখা হয়েছে

কিশোরগঞ্জের ভৈরব সীমানা থেকে মেঘনা নদী দিয়ে সাঁতার কেটে নরসিংদীর রায়পুরার মনিপুরা খেয়াঘাট পর্যন্ত দীর্ঘ প্রায় ৪২ কিলোমিটার নদীপথ পাড়ি দিয়েছেন বকুল সিদ্দিকী নামে এক পল্লী চিকিৎসক।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) ভোর ৫টার দিকে ভৈরব সংলগ্ন মেঘনা নদী দিয়ে সাঁতার শুরু করে প্রায় ৭ ঘণ্টা বিরতিহীন সাঁতার কেটে দুপুর ১২টার দিকে রায়পুরা উপজেলার মনিপুরা খেয়া ঘাটে এসে পৌঁছান তিনি।

সাঁতারু বকুল সিদ্দিকী নরসিংদী সদর উপজেলার আলোকবালী ইউনিয়নের খোদাদিল্লা গ্রামের সাবেক স্বাস্থ্য পরিদর্শক সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। এসময় স্পিডবোট, নৌকা ও ট্রলার নিয়ে অর্ধশতাধিক দর্শক তার সঙ্গে ছিলেন।

দীর্ঘ এই নদীপথ পাড়ি দিয়ে মনিপুরা ঘাটে এসে পৌঁছার পর উৎসুক গ্রামবাসী তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানায়। এ সময় সাঁতারু বকুলকে দেখতে খোদাদিল্লা গ্রামসহ এর আশে পাশের এলাকা থেকে নৌকা ও স্পিডবোট নিয়ে ভিড় জমায়।+৭

সাঁতারু বকুল সিদ্দিকী জানান, মেঘনা নদীর শাখা নদীর তীরে তাদের বাড়ি। ছোট বেলা থেকেই নদীতে সাঁতার কেটে আসছেন ।

তাই সাঁতারের মাধ্যমে তিনি বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে চান। ২০২০ সালে ২৩ আগস্ট স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশের আয়োজনে মেঘনা নদীতে এক সাঁতার প্রতিযোগিতা ৪ ঘণ্টায় ১৫ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে বিজয়ী হয়েছিলেন তিনি। তারই ধারাবাহিকতায় নদীপথে সাঁতার কেটে পূর্বের রেকর্ড ভেঙে দিয়ে গিনেজ বুকে নতুন করে রেকর্ড করতে চান তিনি। আগামীতে নরসিংদী থেকে নদীপথে ঢাকা যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

এই বিভাগ থেকে আরও পড়ুন

এক ক্লিকে বিভাগের খবর

স্বত্ব © তাজা বার্তা ২০২০-২০২১
Developed by XOFT IT